1. masudkhan89@yahoo.com : admin :
  2. armanchow2016@gmail.com : bbn news : bbn news
মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ১১:১৪ অপরাহ্ন

বাঁশখালীতে চিরকুটসহ যুবকের লাশ উদ্ধারে চকরিয়ায় বাড়িতে তোলপাড়

সাংবাদিক :
  • আপডেট : শনিবার, ৫ জুন, ২০২১
  • ৭৪ সংবাদ দেখেছেন

চকরিয়া প্রতিনিধি:
হাতের লেখা চিরকুটসহ কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার ডুলাহাজারা ইউনিয়নের বাসিন্দা বাবু কুমার শীল (২৫) নামের ব্যবসায়ী যুবকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে বাঁশখালীর রামদাশ ফাঁড়ি পুলিশ। ময়নাতদন্তের পর বৃহস্পতিবার রাতে লাশ পরিবারের নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে। নিহত যুবক বাবু কুমার শীল চকরিয়া উপজেলার ডুলাহাজারা উত্তরপাড়া গ্রামের রনজিত শীলের ছেলে। তাঁর মৃত্যুর ঘটনায় এলাকাবাসির মনে ক্ষোভ বাড়ছে। পাশাপাশি বিষয়টি নিয়ে আত্মীয় স্বজন পাড়া-প্রতিবেশির মধ্যে তোলপাড় চলছে।
বাঁশখালীর রামদাশ পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ রাকিবুল ইসলাম বলেন, ‘বাবু কুমার শীলের লাশ ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে। লাশের কক্ষ থেকে একটি সুইসাইড নোট পাওয়া গেছে। তবে মৃত্যুর কারণ জানতে সুরতহাল প্রতিবেদন শেষে লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।’
এদিকে নিহতের বাবা রনজিত কুমার শীল তাঁর বাড়িতে সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমার ছেলে কেন আত্মহত্যা করবে ? তার মৃত্যুর খবর পেয়ে ছুটে এসে দেখি পুলিশের কাছে লাশ। লোকজন বলছে রশিতে ঝুলে আত্মহত্যা করেছে। তিনি দাবি করেন, এটি আত্মহত্যা নয় তাঁর ছেলেকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। এমনকি উদ্ধার হওয়া চিরকুটের লিখাও তার হাতের কিনা আমাদের সন্দেহ হচ্ছে বলে দাবি করেন বাবা রনজিত। অবশ্য পুলিশ চিরকুটটি তদন্ত করছেন।
পারিবারিক সুত্রে জানা গেছে, বাবু কুমার শীল প্রাণ কোম্পানির সাব ডিলার হিসেবে বিভিন্ন পণ্য বাঁশখালীর হাটবাজারে সরবরাহ করতেন। রামদাস মুন্সির হাটে গরুর বাজারের সম্মুখে আলী আহম্মদের মার্কেটে দুইটি কক্ষের একটিতে গোডাউন হিসেবে মালামাল রেখে ব্যবসা করতেন, অন্যটিতে তিনি নিজে থাকতেন। তার সাথে মিঠুন সেন গুপ্ত নামের এক ব্যক্তিও ভাড়ায় থাকতেন। মিঠুন অন্য একটি বেসরকারি কোম্পানিতে চাকরি করেন। মঙ্গলবার রাতে মিঠুন সেখানে ছিলেন না।
তবে গত বুধবার সকাল ৯টায় চট্টগ্রাম শহর থেকে বাঁশখালীতে এসে বাসার রুম খুলে বাবুর ঝুলন্ত লাশ দেখতে পান তিনি। পরে হাটের পরিচিত ব্যবসায়ী এবং রামদাস মুন্সির হাট পুলিশ ফাঁড়িতে খবর দিলে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে। ওইখানে পুলিশ হাতের লেখা একটি চিরকুট উদ্ধার করেছে। ওই চিরকুটে পারিবারিকভাবে আর্থিক সংকট ও ঝগড়াঝাটির কথা উল্লেখ রয়েছে। তার আত্মহত্যার জন্য কেউ দায়ী নয় বলেও লিখে গেছেন।
চকরিয়া উপজেলার ডুলাহাজারা ৫নং ওয়ার্ডের মেম্বার নুরুল আবছার বলেন, তাদের পরিবারে এমন কোন বিরোধ ছিলনা সে অতিষ্ঠ হয়ে এমন সিদ্ধান্ত নিবে। হয়তো ব্যবসায়ীক লেনদেনের বিরোধে চিরকুট লিখে কেউ হত্যা করেছে কিনা এমনও সন্দেহ পোষণ করেন তিনি।

 

শেয়ার করুন

একই বিভাগের আরও খবর
© All rights reserved © 2021,বিবিএন নিউজ
Developer By Zorex Zira