1. masudkhan89@yahoo.com : admin :
  2. armanchow2016@gmail.com : bbn news : bbn news
মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ১০:২৯ অপরাহ্ন

ওমরাহ করতে খরচ হবে দ্বিগুণ!

সাংবাদিক :
  • আপডেট : বুধবার, ১১ আগস্ট, ২০২১
  • ৬৮ সংবাদ দেখেছেন

বিবিএন নিউজ: সৌদি সরকার বিদেশি মুসল্লিদের ওমরাহ করার অনুমতি দিলেও নতুন প্রটোকল অনুসরণ করে বাংলাদেশি ওমরাহ যাত্রী পাঠাতে কম করে এক মাস সময় লাগবে বলে জানিয়েছে হজ এজেন্টদের সংগঠন হাব। করোনা পরিস্থিতিতে হোটেল, আবাসন, পরিবহনসহ সব ক্ষেত্রে নিরাপদ শারীরিক দূরত্ব নিশ্চিতের বাধ্যবাধকতা থাকায় ওমরাহ পালনের খরচও বেশি হবে। টাকা জমা দেয়াসহ সব আনুষ্ঠানিকতা সারার পর ফ্লাইটে উঠার ৪৮ ঘণ্টা আগে করোনা পজিটিভ হলে বাতিল হবে যাত্রা।

করোনাভাইরাস মহামারির কারণে বিদেশিদের জন্য সৌদি আরবে গিয়ে হজ ও ওমরাহ পালন দীর্ঘদিন বন্ধ থাকলেও এবার বাংলাদেশসহ কয়েকটি দেশের জন্য ওমরাহ পালনের নিষেধাজ্ঞা শিথিল করা হয়েছে। মঙ্গলবার (১০ আগস্ট) থেকে বিদেশি মুসল্লিদের ওমরাহ পালনে অনুমতি দিয়েছে সৌদি সরকার। কিন্তু দেশটির নানা শর্ত ও নিয়মকানুনের কারণে এই মাসে বাংলাদেশি মুসল্লিদের ওমরাহ করতে সৌদি আরব পাঠানো সম্ভব নয় বলে জানিয়েছে হজ এজেন্টদের সংগঠন হাব।

এ বিষয়ে হাবের সিনিয়র সহ সভাপতি ইয়াকুব শরাফতি সময় সংবাদকে বলেন, এখনও সৌদি সরকারের হজ ও ওমরাহ এজেন্সিগুলো ওমরাহ পালনের মোট খরচ বা প্যাকেজ পাঠায়নি। অর্থাৎ ওমরাহ করতে জনপ্রতি খরচের হিসাব দেয়নি। কোন কোন হোটেলে মুসল্লিরা থাকবেন সেই তালিকাও হাতে আসেনি। ওমরাহ যাত্রায় অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ অংশ বিমান ভাড়া কত হবে সেটিও জানায়নি এয়ারলাইন্সগুলো। সেই সঙ্গে রয়েছে করোনা ভ্যাকসিনের জটিলতা।

এসব জটিলতার কারণে মুসল্লিদের ওমরাহ পালনে সৌদি আরবে পাঠানোর আনুষঙ্গিক প্রক্রিয়া শেষ করতে অনেক সময় লাগবে। আগে একটি গ্রুপে ৪৫ থেকে ৫০ জন মুসল্লি নেওয়া গেলেও করোনা সংক্রমণ রোধে সবোর্চ্চ ২৫ জনের বেশি নেয়া যাবে না। একইভাবে হোটেল এক কক্ষে আগে ৪ বা ৫জন রাখা গেলেও এখন ১ থেকে ২ জনের বেশি রাখা যাবে না। বাসেও সিট ফাকা রেখে মুসল্লিদের বাসতে হবে। এতে খরচ বাড়ায় জনপ্রতি কমপক্ষে ২ লাখ লাগবে ওমরাহ পালনে। সব প্রক্রিয়া শেষ করার পরে করোনা পজিটিভ হলে হজে যেতে পারবেন না সংশ্লিষ্ট মুসল্লি। চুক্তি অনুযায়ী অনলাইনে আগেই সব অর্থ পরিশোধ করায় ওমরাহ করতে না পারলেও এক্ষেত্রে মুসল্লিরা টাকা ফেরত পাবেন না।

মুসল্লিদেরও পালন করতে হবে নানা নিয়ম কানুন। আগের মতো নিজেদের মতো ঘোরাফেরা করতে পারবেন না। মুসল্লিদের গতিবিধি অনুসরণ বা ট্র্যাক করা হবে তাওয়াক্কুল অ্যাপস এর মাধ্যমে। সৌদি আরবে পৌঁছানোর পর হোটলের কক্ষেই ৭২ ঘণ্টা কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। সৌদি সরকারের নুতন প্রটোকল অনুযায়ী ওমরাহ সংক্রান্ত যাবতীয় বুকিং দিতে হবে কর্তৃপক্ষের দেয়া তামান্না অ্যাপে। ওমরাহ যাত্রীদের প্রত্যেকের স্মার্ট ফোনে দুটি অ্যাপস থাকতে হবে।

সৌদি আরবের হজ ও ওমরাহ মন্ত্রণালয় থেকে স্বীকৃত ওমরাহ এজেন্সির মাধ্যমেই কেবল সৌদি আরবে আসতে পারবেন মুসল্লিরা। এক্ষেত্রে মুসল্লিরা ভুয়া এজেন্সির প্রতারণা থেকে সাবধান থাকার আহ্বান জানিয়েছে হাব।

শেয়ার করুন

একই বিভাগের আরও খবর
© All rights reserved © 2021,বিবিএন নিউজ
Developer By Zorex Zira